‘আমরা ১০০ দিনের কাজে এক নম্বরে, তাই টাকা বন্ধ’, দাবি মমতার!মানুষের পাহারাদার তিনি, জমিদার নন,হাওড়া থেকে বার্তা মুখ্যমন্ত্রীর


শঙ্খ ভট্টাচার্য :- প্রশাসনিক সভার মঞ্চ থেকে সরাসরি কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়| তাঁর অভিযোগ কেন্দ্রীয় সরকারি প্রকল্পগুলিতে বাংলা এক নম্বরে ছিল বলেই কেন্দ্রের মোদি সরকার বাংলার জন্য টাকা বন্ধ করে দিয়েছে | হাওড়ার উলুবেড়িয়াতে ২ হাজার কোটি টাকার বিনিয়োগে লজিস্টিক হাব তৈরি করছে অ্যামাজন | আগামীদিনে আরও একাধিক শিল্প সংস্থা এই জেলায় শিল্পস্থাপন করতে চলেছে। যার ফলে আগামী দিনে হাওড়ায় আরও দেড় লক্ষের বেশি ছেলেমেয়ের চাকরি হবে | বুধবার সাঁতরাগাছিতে সরকারি পরিষেবা প্রদান অনুষ্ঠান থেকে একথা জানান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় | মুখ্যমন্ত্রী জানান, ইতিমধ্যে হাওড়ায় সাড়ে ৫ হাজার শিল্পে সাড়ে ৫ হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগ করা হয়েছে | চাকরি হয়েছে ৬৭ হাজার মানুষের | আগামী দিনে আরও ২০ হাজার ৩০০-র বেশি শিল্পে ১১ হাজার ৮৩৩ কোটি টাকার বিনিয়োগের প্রস্তাব এসেছে | মুখ্যমন্ত্রীর কথায়, “হাওড়ায় এখন শিল্পে জোয়ার এসেছে | আগামী দিনে ১ লক্ষ ৬০ হাজার ছেলেমেয়ের চাকরি হবে এই জেলাতেই |”এদিন মোট ২৫২ কোটি টাকার প্রকল্প উদ্বোধন করেন মুখ্যমন্ত্রী | হাওড়ার উন্নয়নে রাজ্য সরকার কী কী করেছে, সেই হিসেবও তুলে ধরেন তিনি | এদিনের অনুষ্ঠান থেকে বিভিন্ন প্রকল্পে প্রায় ৭০০ কোটি টাকার পরিষেবা তুলে দেওয়া হয় | এর ফলে উপকৃত হবেন জেলার প্রায় দেড় লক্ষ মানুষ |

মুখ্যমন্ত্রী এদিন জোর গলায় বলেন, ” আমি জোতদার, জমিদার নই | আমি পাহারাদার | আমি সাধারণ মানুষের মুখে হাসি ফোটাবোই |” মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন, “আমার নাম আন্দোলন | আমার নাম সংগ্রাম |”

বুধবার হাওড়ার সাঁতরাগাছির প্রশাসনিক সভা থেকে ফের বঞ্চনার প্রতিবাদে সুর চড়ালেন মমতা | ১০০ দিনের প্রকল্পে বাংলা এক নম্বরে থাকায় টাকা বন্ধ বলেই দাবি তাঁর | প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে বার বার জানানো সত্ত্বেও বকেয়া ফেরত পাননি বলেই দাবি মমতার | তাঁর কথায়, “প্রধানমন্ত্রীকে অনেকবার বলেও লাভ হয়নি, ৩ বছরের ১০০ দিনের কাজের টাকা মেলেনি | ২১ লক্ষ শ্রমিক টাকা পাননি | কেন্দ্র টাকা বন্ধ করে দিয়েছেন | টাকা আমরা পাঠাতে শুরু করেছি |

মুখ্যমন্ত্রী এরপরেই বলেন, ‘বাংলা মাথা নত করে না | মা-বোনেরা সংসার চালান কী করে? কোনওদিন আলু ভাত খান, কোনওদিন মাছ ভাত খান। যে মাসে টাকা টান পড়ে, সেই মাসে ধার করেন | দোকানদারকে বলেন আমাকে দাও ভাই | আমি আগামী মাসে তোমারটা শোধ করে দেব | আমাকেও পশ্চিমবঙ্গ সরকার চালাতে হয় | আমাকেও সংসার চালাতে হয় | যখন প্রাপ্য টাকা বন্ধ করা হয়, মা বোনেরা যেভাবে সংসার চালায়, আমিও সেভাবে সংসার চালাই |’ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সংযোজন, ‘যখন প্রাপ্য টাকা পাই না, তখন মা-বোনেরা যেভাবে সংসার চালান, আমিও সেইভাবে সংসার চালাবো |’


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

five × two =