দশঘড়া রাজবাড়ী

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

৩ আগস্ট, ২০২১: বাংলার কানানদীর তটে গড়ে ওঠা নবযুগের গড়া হুগলি জেলার ধনিয়াখালি থানার অন্তর্গত বহরমপুর গ্রাম।বহরমপুরের পাশেই কানানদী, বাপঠাকুরদার কাছে শুনেছি কাটা নদী থেকে নামটা এসেছে।এই কাটানদী থেকেই কানানদী,আর কানানদী থেকে জায়গার নামও কানানদী হয়ে যায়।এই কানানদী বর্তমানে ঠিক সরস্বতীর দশায় পরিণত হয়েছে। এবার এটাও হতে পারে প্রাচীনকালে কৃষ্ণনগরের পশ্চিমে রত্নাকর নামে একটি বড় নদী ছিলো তার তীরে ঘন্টেশ্বর লিঙ্গ অবস্থিত। ঘন্টেশ্বরশ্চ দেবেশী রত্নাকর নদীতটে মহালিঙ্গার্চ্চনতন্ত্রে লেখা কিংবদন্তী অনুসারে অভিরাম গোস্বামীর অভিশাপে ভেঙে যায় তার অহংকার এবং তার পরেই নদী হয়ে যায় কানা ও তার স্রোত হয়ে যায় ক্ষীণ,তখন থেকেই নদী হয়ে যায় কানানদী অর্থাৎ রড়া নদী অনুকরণে। অতীতে এই কানানদীতেই একটি রেলওয়ে স্টেশন ছিলো।তারকেশ্বর ত্রিবেণী বি পি রেলওয়ে রুট গুলো ছিলো যথাক্রমে তারকেশ্বর, গোপীনগর, দশঘড়া,কানানদী, ধনিয়াখালি, রুদ্রাণী, মাঝনান, ভাস্তাড়া, মেলিক, গোয়াইআমরা, দ্বারবাসিনী, মহানন্দা, হালুসাই,সুলতানগাছা,মগরাগঞ্জ,মগরা,ত্রিবেণী। এখন সেই রেলপথ সময়ের চাকায় মাটির নীচে চাপা পড়ে গেছে মহাকালের অতলে। এখন তারই উপর দিয়ে ছুটে চলেছে ১৭নম্বর সড়ক।এখন আর কেউ গরুরগাড়ি করে সেই কানানদী স্টেশনে যায় না,এ প্রথা উঠে গেছে বহুকাল আগেই। এখন কেবল রুপকথার গল্পেই তা শোনা যায়।
এই বহরমপুরের উত্তর প্রান্তে রয়েছে দশঘড়া,পশ্চিম প্রান্তে তাঁতের শাড়ির জন্য বিখ্যাত ধনিয়াখালি বাজার। এই দশঘড়ায় বাস ছিলো রায় ও বিশ্বাস জমিদারের। ছোট্ট বেলায় রথ দেখতে গিয়ে শুনেছি বিশাল দিঘির জলে গুপ্তধনের গল্প, মুঘলদের হাত থেকে ধনসম্পদ রক্ষা করার জন্য দশটি ঘড়ায় করে দিঘির জলে লুকিয়ে রাখা হয়েছিল। তাই হয়তো লোককথা থেকেই নামটা এসেছে দশঘড়া। আবার এমনও হতেপারে দশটি ছোটো ছোটো গ্রাম নিয়ে গঠিত হয়েছিল বলে এর নাম হয় দশঘড়া। এই দশটি গ্রাম এখনও বর্তমান। গ্রামগুলো হল শ্রীকৃষ্ণপুর, জাড়গ্রাম, দিঘরা, আগলাপুর, শ্রীরামপুর, ইছাপুর, গোপীনগর, গঙ্গেশনগর, পাড়াম্বুয়া ও নলথোবা। দশঘরা বলে একটি পৃথক মৌজা থাকলেও সরকারি গ্রন্থে উল্লেখিত একটি গ্রামকেই দশঘরা বলা হয়।
লেখা – হুগলি কথা ও রাঢ়বঙ্গের ইতিহাস


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

sixteen + 2 =