৫৫ দিন পর পুলিশের জালে শেখ শাহজাহান!১০ দিনের পুলিশি হেফাজতে সন্দেশখালির ‘বাঘ’,গ্রেফতার হতেই শাহজাহানকে ছ’বছরের জন্য সাসপেন্ড তৃণমূলের


সুমিত দে :- :- ৫৫ দিন বেপাত্তা থাকার পর অবশেষে শেষ পুলিশের জালে ধরা পড়ল সন্দেশখালির বেতাজ বাদশা শেখ শাহজাহান |বুধবার রাতে মিনাখাঁ থেকে শাহজাহানকে গ্রেফতার করে পুলিশ | বৃহস্পতিবারই শেখ শাহজাহানকে আগামী ৬ বছরের জন্য সাসপেন্ড করল তৃণমূল |

বৃহস্পতিবার বসিরহাট মহকুমা আদালতের বিচারক ১০ দিনের পুলিশি হেফাজতে পাঠান শেখ শাহজানকে | তৎপরেই ধৃত শাহজাহানকে কলকাতার ভবানী ভবনে রাজ্য পুলিশের সদর দফতরে নিয়ে এল পুলিশবাহিনী | বসিরহাট আদালত থেকে সরাসরি সন্দেশখালিকাণ্ডে ধৃত তৃণমূল নেতাকে ভবানী ভবনে নিয়ে আসা হয় | সংবাদমাধ্যমের চোখে ধুলো দিয়ে বসিরহাট থেকে বেরিয়ে বাসন্তী হাইওয়ে ধরে ঘটকপুকুর, ভোজেরহাট পেরিয়ে সায়েন্স সিটি পেরিয়ে শাহজাহানকে কলকাতায় নিয়ে এসেছে পুলিশ |একপ্রকার ‘গ্রিন করিডর’ গড়ে বিনা হইচইয়ে শাহজাহানকে নিয়ে ভবানী ভবনে পৌঁছয় রাজ্য পুলিশ | আগামী ১০ দিন তাঁকে সেখানেই রাখা হবে | সেখানেই তাঁকে দফায় দফায় জেরা করবেন রাজ্য পুলিশের পদস্থ অফিসারেরা |পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে,ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৪৭,১৪৮,১৪৯,১৮৬,৩০৭,৩৪১,৩৪২, ৩৫৩,৩৭৯,৫০৬,৩৪১,৩৫৩,৩২৩,৪২৭, ৫০৬,সরকারি সম্পত্তির ক্ষতি আইনের ৩ নম্বর ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে|

বৃহস্পতিবার কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চের দ্বারস্থ তৃণমূল নেতার আইনজীবী সব্যসাচী বন্দোপাধ্যায়| তাঁকে তীব্র ‘ভর্ৎসনা’ প্রধান বিচারপতির | তৃণমূল নেতার আইনজীবী সব্যসাচী বন্দোপাধ্যায় উদ্দেশে প্রধান বিচারপতি বলেন, “আপনার জন্যই আমরা অপেক্ষা করছিলাম|” শেখ শাহজাহানের আইনজীবী বলেন, “আগাম জামিনের আবেদন ২ দিন আগে খারিজ হয়েছে | নিম্ন আদালতে এখনও আমার চারটি আবেদন বিচারাধীন আছে | গতকাল মামলার কথা আমরা জানতাম না| ” ভর্ৎসনার সুরে প্রধান বিচারপতি আরও বলেন, “আগামী ১০ বছর আপনাকে খুব ব্যস্ত থাকতে হবে | এই মক্কেলের অনেক কাজ করতে ব্যস্ত থাকতে হবে | ৪-৫ জন জুনিয়র রাখতে হবে |” শেষে তিনি বলেন, “এই ব্যক্তির জন্য আমার কোন সমবেদনা নেই|” এরপরই মামলা ফিরিয়ে দেয় প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ |

বৃহস্পতিবার তৃণমূলের রাজ্যসভার সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েন বলেন, “শেখ শাহজাহানকে দল থেকে আগামী ৬ বছরের জন্য সাসপেন্ড করা হয়েছে |” ব্রাত্য বসু বলেন, ‘‘দলের কারও বিরুদ্ধে অভিযোগ পেলে তৃণমূল যে পদক্ষেপ করে, এটাই তার প্রমাণ | যদিও তৃণমূলের কাছে এটা নতুন কিছু নয় | তৃণমূল আগেও এ কাজ করেছে |”এর পরই বিজেপিকে একহাত নিয়ে ব্রাত্য বলেন, “বিজেপি তো আর তৃণমূল নয় | আমরা প্রধানমন্ত্রীকে চ্যালেঞ্জ করছি, শুভেন্দু অধিকারী, হিমন্ত বিশ্বশর্মা বা নারায়ণ রাণেকে সাসপেন্ড করে দেখান উনি | মণিপুরের মুখ্যমন্ত্রী, ব্রিজভূষণ বা অজয় মিশ্র টেনির ব্যাপারে কী পদক্ষেপ করা হয়েছে?’’

অন্যদিকে বৃহস্পতিবার দুপুরে কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি টিএস শিবজ্ঞানমের ডিভিশন বেঞ্চে একটি আবেদন করে ইডি | তাতে তারা দাবি জানায়, সিট গঠনের যে মামলায় আদালত স্থগিতাদেশ দিয়েছে তার দ্রুত শুনানি চায় তারা | ইডির তরফে জানানো হয়, রাজ্য পুলিশ শেখ শাহজাহানকে গ্রেফতার করেছে বটে, কিন্তু তাদের আশঙ্কা, রাজ্য পুলিশের হেফাজতে শেখ শাহজাহান থাকলে তথ্যপ্রমাণ নষ্ট হতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন তাঁরা | সেক্ষেত্রে পরবর্তী তদন্তে বাধার মুখে পড়তে হতে পারে। ইডির দায়ের করা ওই মামলার পরবর্তী শুনানির দিন ৬ মার্চ ধার্য করেছিল আদালত |


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

two × four =